চিলি – ভিয়েতনামী

 

 

“এই লেখাটি আমার নিজের লেখা না। অন্য একটি চটি সাইট থেকে সংগৃহীত। ভাল লাগল তাই শেয়ার করলাম। মূল লেখক এখানে থেকে থাকলে তার কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী তার অনুমতি ছাড়াই পোষ্ট করার জন্য”
চিলিকে আমি বিদেশী সহকর্মী হিসেবে চিনতাম। ভিয়েতনামী তরুনী। মেইলে যোগাযোগ হতো কাজ নিয়ে। আমি তেমন পছন্দ করতাম না মেয়েটা ওভারস্মার্ট আচরন। মাতবরী করার একটা প্রবনতা ছিল তার মধ্যে। কিমি ছিল ওর বস, কিমিকেও মাঝে মাঝে আমি পছন্দ করতাম না। বিরক্ত লাগতো। সেরকম একটা সময়ে চিলি একদিন চ্যাটে বন্ধুত্বপূর্ন সম্পর্কের আমদানী করলো। বেশ কিছুদিন আমরা বন্ধু হিসেবে কাটালাম। সে জানতো আমি বিবাহিত। তবু কিছুদিন পর সে কেমন যেন আস্তে আস্তে আরো ঘনিষ্ট হতে শুরু করলো। ওর কোন বয়ফ্রেন্ড ছিল না। সে মনের মতো করে কাউকে পাচ্ছিল না। তাই প্রক্সির মতো আমাকে ব্যবহার করতে চাইলে আমি আপত্তি করলাম না। যদিও সরাসরি কখনো বলেনি। আমার বয়স ৩৫ পেরিয়েছে। ওর বয়স ২২। আমার মধ্যে রোমাঞ্চ বা সেরকম কোন অনুভুতি নেই। বয়স চলে গেছে আরো আগেই। মেয়েদের জন্য অবশিষ্ট আছে শুধু দেহজ অনুভুতি। তবে এই মেয়েটাকে নিয়ে দেহজ কথা ভাবা ঠিক হবে না কারন সে কলিগমাত্র। নিরাপদ বোধ করি না এরকম ক্ষেত্রে। কাজেই সরাসরি যৌনতার ব্যাপারেও এগোতে পারছি না অন্যান্য অনলাইন বান্ধবীর মতো। ভদ্রতার মুখোশ পরে থাকতে হয়। কিন্তু চিলি ছিল নাছোড়বান্দা টাইপ। সে লেগে আছে আমার সাথে। যে কোন পথে আমার সাথে ঘনিষ্টতা করবেই। ফলে যা হবার হলো, একটা সময়ে আমি সাহস করে দেহজ ব্যাপারে আগালাম। ওমা দেখি, আমি এক পা দিলে সে তিন পা আগায়। শুরু হলো মজার খেলা। কয়েকটা টেষ্ট নিয়ে দেখলাম তাকে বিশ্বাস করা যায়।
খেলার শুরুতে শুধু চ্যাটের শব্দেই সীমাবদ্ধ থাকলো যৌনতার খেলা। তারপর একসময় ব্যাপারটা দেখাদেখিতে গড়ালো। চিলি ওয়েবক্যাম কিনলো। আমাকে শো দেখাবে। আমি বৌকে বাপের বাড়িতে পাঠিয়ে প্রদর্শনী নিরাপদ করলাম। তখনো জানিনা ওয়েবক্যামে একটা মেয়ে কতটুকু খোলামেলা হতে পারে। তাছাড়া এই মেয়ে কলিগ, তাকে বেশী খারাপ কিছু করা যাবে না। আমার টার্গেট বুক পর্যন্ত। এমনকি ব্রা পরা অবস্থায় দেখলেও চলবে। আমার কেবল মেয়েদের স্তনের প্রতি দুর্বলতা। যে কোন মেয়েকে আমি নগ্নবক্ষা দেখতে পছন্দ করি। একইভাবে আমার একটা সুপ্তবাসনা হয়েছে চিলির নগ্নস্তন দেখার।

Imagehttp://adf.ly/SNI3W

This entry was posted in Uncategorized. Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s